মোবাইল টিপস

মোবাইল মেমোরি কেন ফুল হচ্ছে এবং এর সমাধান কি?

 আসসালামু আলাইকুম, আশা করি আপনি ভালো আছেন্। আল্লাহর রহমতে আমিও ভালো আছি। আজকে আমি একটি নতুন বিষয় নিয়ে লিখতে যাচ্ছি, সেটি হলো হঠাৎ মোবাইল মেমোরি কেন ফুল হচ্ছে এবং এর সমাধান কি? আমরা প্রায়ই এই সমস্যায় ভোগে থাকি। নতুন ফোন কেনার পর অল্প কিছু দিন পর ফোনের স্টোরেজ ফুল দেখায় এমন কি মাঝে মাঝে এমনও হয় যে, ছবি তুলতে গেলে দেখায় যে স্টোরেজের কিছু একটা ডিলেট করার কথা বলে। কেন মোবাইলের এই সমস্যা দেখা দেয়, কেন আমাদের মোবাইলের মেমোরি ফুল হচ্ছে এবং মোবাইলের মেমোরি ফুল হওয়ার হাত থেকে বাাচার উপায় কি? আজকে আমি  এ বিষয় নিয়েই আমি আপনাদের সামনে বিাস্তারিত আলোচনা করব।

১. আপনার ফোনের যে অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে সেটি আপনার ফোনের ইন্টারনাল স্টোরেজের জায়গা কমিয়ে দেয় । এই অপারেটিং সিস্টেম আপনার ফোনে স্পেশ অনেকটা কমিয়ে দেয়।

২. আপনি যদি আপনার ফোনে কোন গেম বা সফটওয়্যার ডাউনলোড করে থাকেন এবং আপনি ‍যদি আপনার ফোন দিয়ে গেম খেলে থাকেন। এই সকল গেম কিন্তু আপনার ফোনের স্টোরেজ অনেকট কমিয়ে দিবে। আপনার গেমেরে যে সকল এমবি ব্যায় হচ্ছে সেটি পরিপূর্ণ আপনার ফোন স্টোরেজ থেকে। আপনার এসডি কার্ড থাকলেও সেটি কোন কাজে আসবে না।

৩. আপনি যদি আপনার ফোনে কোন এপস ইন্সল করে থাকেন হতে পারে সেটির সাইজ ৪০ থেকে ৫০ এমবি । এই সমস্ত এপস কিছু দিন পর পর আপডেট হয়ে থাকে একসময় দেখা যায় আপনার ৫০ মেগাবাইট থেকে ৫০০ মেগাবাইট হয়ে যায়।িআর দীর্ঘ সময় ‍যদি তার ডাটা সেভ করে রাখতে থাকে সেটি ২ থেকে ৩ জিবিও হয়ে যেথে পারে।

মোবাইল মেমোরি ফুল হলে এর সমাধান কি?

১. বড় স্টোরেজের ফোন ক্রয় করুন: প্রথমে ফোন কেনার সময় যদি সামর্থ থাকে তাহলে, বড় কোন স্টোরেজের ফোন ক্রয় করতে হবে। হতে পারে সেগুলো ৬৪ জিবি বা ১২৮ জিবি অথবা সর্বনিম্ন ৩২ জিবি কনাই ভালো।

২. অপ্রয়োজনীয় এ্যাপস ডিলিট করুন:  আপনি আপনার ফোনে এমন কিছু এপস রেখে দিয়েছেন যেগুলো সচরাচর কাজে আসে না। হঠাৎ একবার কাজে আসে। এই এপসগেুলো আপনার ফোন থেকে আনইন্সটল করে দেন । এবং যখন প্রয়োজন হবে তখন ইনস্টল করে নিবেন। কারণ এই সম্স্ত এপস কিছু দিন পর পর আপডেট আসবে আপনার ফোনের স্টোরেজ দিন দিন কমিয়ে দিবে । তাই এই সমস্ত এপস ডিলেট করে রাখাটাই ভালো হবে।

৩.এ্যাপস ডাটা ডিলিট করুন: তৃতীয় নাম্বারে আপনাকে যে কাজটি করতে হবে সেটি হলো আপনার ফোনে থাকা এপস ডাটা এবং ক্যাশ ডাটা ডিলেট করে রাখবে হবে।

৪. নিয়মিত cache file ডিলিট করুন: চতুর্থ নাম্বারে আপনার স্টোরেজ থেকে পুরো মোবাইল আপনি যা কিছু ব্যবহার করেতেছেন পুরা এপস, ইন্টানেট, সবকিছুর একটি ক্যাশ ফাইল জমা হয়।  সেই ক্যাশ ডাটগুলো্ আপনাক ডিলেট করতে হবে। ক্যাশ ডাটা ডিলিট করার জন্য আপনি সেটিং অপশনে যাবেন । সেখানে থেকে এবাউট অপশনে যাবেন সেখান থেকে আপনার ক্যাশ ফাইলগুলো ডিলিট করে ফেলূন। আপনাকে অবশ্যই ১ মাস বা ২ মাস পর পর আপনার ক্যাশ ফাইল গুলো ডিলিট করে রাখতে হবে।

আশা করি আপনি এর মাধ্যমে সামান্য হলেও উপকৃত হবেন। আপনার উপকারে আসলে আমার েএই লেখাটি স্বার্থক হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button