ভাবসম্প্রসারণ

পরের অনিষ্টা চিন্তা করে যেই জন,/নিজের অনিষ্ট বীজ করে সে বপন ।

 পরের অনিষ্টা চিন্তা করে যেই জন,/নিজের অনিষ্ট বীজ করে সে বপন ।

পরের অনিষ্টা চিন্তা করে যেই জন,/নিজের অনিষ্ট বীজ করে সে বপন ।


 ভাব সম্প্রসারণ : আপনার উপকার হবে ভেবে যেজন অপরের আত্ননিয়োগ করে ,পরিণামে সে নিজেই কষ্ট ভোগ করে ।

মানুষ সামাজিক জীব ।সমাজে মানুষ পরস্পর পরস্পরের সহযোগী হয়ে বাস করে ।একে অপরের কল্যাণ সাধণ করাই মানুষের মানবিক ও নৈতিক ধর্ম ।পৃথিবীর অন্যান্য প্রাণী থেকে মানুষের পার্থক্য হলো-মানুষ শুধূ নিজের কথাই চিন্তা করে পৃথিবীতে বেঁচে থাকে না ।মানুসকে তার চারপাশের জগৎ দিয়েও ভাবতে হয় ।যে মানুষ সর্বদা অন্যের উপকার করার কথা ভাকে এবং নিজেকে সর্বদা অন্যের হিতার্থে ব্যাপৃত রাখে সে সমাজে সম্মানিত হয় ।অন্যদিকে,মানুষ যখন নিজের স্বার্থকে প্রাধান্য দেয় তখন সে অপরের ক্ষতি সাধনে তৎপর হয় এবং অন্যের ক্ষতি চিন্তা মগ্ন থাকে ।এমতাবস্তায় সে সর্বদা হীনস্মন্যতায় ভোগে ।এতে তার চিওে শুদ্ধি আসে না বলে সে তার স্বিয় কর্মক্ষেত্রের উন্নতি করতে পারে না ।কেননা ,মানুষের স্বার্থবুদ্দি প্রাধান্য পেলে তার পরিণতিত শুভ হয় না ।অপরকে ক্ষতিগ্রস্ত করে নিজ লাভবান হওয়ার চেষ্টা অন্যায় কর্ম বলে বিবেচিত হয় ।আর এ অন্যায় যারা করে অর্থাৎ নিজের স্বার্থকে যারা বড় করে দেখে তারা সংকতীর্ণমনা ,অনুদার ।তাদের কাজ –কর্মে শুধু অন্যের একার ক্ষতি হয় না বরং সমাজও জাতির পাশাপাশি তার নিজের ও বিরাট ক্ষতি হয় ।পার্থিব কর্মের ফল মানুষ কোনো না কোনোভাবে পৃথিবীতেই পেয়ে যায় ।তাই এহেন ব্যক্তিরা নিজেই বিরা্ ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে থাকে ।

অপরের ক্ষতির চিন্তা না করে পরোপকারে আত্ননিয়োগ করাই উওম ।

 

 

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button